হুট করে খুলনা চলে আসছিলাম ফরহাদের সাথে, বন্ধু মুজাহিদের বাসায়। রবিবার রাতের বাসে উঠে সোমবার ভোরে এখানে এসে পৌছালাম।

অনেক জায়গায় ঘুরলাম, রূপসা নদীতে নৌকাভ্রমণ করলাম, ব্রিজের উপর অনেকক্ষণ ঠাণ্ডা হাওয়া খেলাম।

নিউ মার্কেটের বিখ্যাত হোসেনের চা খেলাম ২দিন।

বাইকে করে বাগেরহাট ষাট গম্বুজ মসজিদ আর খান জাহান (রঃ) মাজারে ঘুরলাম।

শুন্য মানব ভাইয়ের সাথে টাইমিং মিলল না। কিন্তু গতকাল রাতে পিয়াস ভাই আর শাওন ভাইয়ের সাথে দেখা হল। আজ বিকেল থেকে উনাদের সাথে ৭নম্বর ঘাটে আড্ডা মারলাম। মিনি চাইনিজে সূপ,ফ্রাইড চিকেন খাওয়ালেন উনি, সন্ধ্যার পর আরও ২জন ফ্রিলেন্সার ভাইদের সাথে ছোট একটা দেখা হয়ে গেল।

একটু আগে ব্যাগ গুছালাম। রাত ১১ টার গাড়িতে ঢাকা ব্যাক করছি। জ্যামমুক্ত আর শান্তিপূর্ণ খুলনা ছেড়ে আবার সেই চিরচেনা ঢাকার দিকে যেতে হবে। মাত্র ৪দিনের সফরে অনেক সুন্দর নতুন একটা অভিজ্ঞতা হল। মুজাহিদ আর ওর ছোট ভাই মুজাদ্দিদ অনেক কস্ট করে রান্না করে খাওয়াল। আবার কবে বন্ধুর সাথে দেখা হবে জানি না। খুব কষ্ট হচ্ছে ওকে রেখে যেতে 🙁

এই সফর না হলে অনেক কিছু অজানা থেকে যেত, অনেক নতুন জায়গা দেখা হত না। এইবার সুন্দরবন ট্রিপটা মিস করলাম, নেক্সট টাইম ইনশাআল্লাহ মিস হবেনা। বিদায় খুলনা!


#নীরাভ আসিফ
২০শে মার্চ, ২০১৪ইং

Leave a comment